সকালে বাপের চিৎকারে ঘুম ভাংছে। কি হইছে বুঝতে যাইয়া বুঝতে পারলাম বুকশেলফে উলু (উঁই পোকা)। মাথাপুরা নষ্ট “হুমায়ূন স্যার এর নির্বাসন, আশাবরি, গৌরীপুর জংশন, ময়ূরাক্ষী, পেন্সিলে আকা পরী” “শরৎচন্দ্রের দেনাপাওনা, পল্লীসমাজ” সমরেশ মজুমদারের-এখনও সময় আছে, জীবনানন্দের- রূপসী বাংলা ও বনলতা সেন, মানচিত্র, শেখ মজিব থেকে শেখ হাসিনা, সংবিধান, জামাতের আসল চেহারা, বদ্ধুদেবের একটা কবিতার বই সহ আরো দুইটা বই পুরাপুরি খাইয়া ফেলছে।

১০০ উপর বইকে আধা আহত করছে। আজ না দেখলে মেবি ঐগুলা ও পড়ার লায়েক থাকতো না।

‪#‎উলুগুলা‬ যদি জানতো..এক একটা বইয়ের পিছনে কত ঈদের সালামি, ছেছরামি, নিজের পেট ও মনকে কষ্ট দেওয়ার ইতিহাস লুকিয়ে আছে।

 

ফেসবুক থেকে নেয়া
https://www.facebook.com/pothik.himu.7