আগামী নির্বাচন কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ হবে বলে মন্তব্য করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, এই মুহূর্তে দলীয় নেতাকর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হওয়া ছাড়া আর কোনো পথ নেই।

আজ মঙ্গলবার বিকেলে শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে ছাত্রলীগের আলোচনায় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে ওবায়দুল এই মন্তব্য করেন।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন,‘টানা দুইবার ক্ষমতায় থাকার কারণে উন্নয়ন হয়েছে অনেক বেশি। দেশের উন্নয়ন অর্জনের ধারাবাহিকতার জন্য একটা দলের পরপর চারবার ক্ষমতায় থাকা প্রয়োজন।’

বিএনপির উদ্দেশে মন্ত্রী বলেন, ‘দুই সেতু করব। তারা তো একটাও করতে পারেননি। আমরা বলছি, পাটুরিয়া থেকে দৌলতদিয়ায় আরেকটা করব।সেটার জন্য প্রয়োজন সরকারের আবারও ক্ষমতায় আসা।’

‘এ সরকার যদি কনটিনিউ (ধারাবাহিকতা রক্ষা) না করে তাহলে সরকারের উন্নয়ন বন্ধ হয়ে যেতে পারে, যেগুলো শেষ হতে আরো কিছু সময় লাগবে।’

বিএনপির ভিশন ২০৩০ প্রসঙ্গে ওবায়দুল বলেন,‘আজকে ভিশনের বিপরীতে ভিশন দিয়ে বলছে, চাঙ্গা হয়ে গেছে। অথচ কোন্দ্বল, সভা করতে পারে না।…বিএনপি এখন নিজেরা নিজেদের বিপরীতে ঘুরে দাঁড়িয়েছে। আওয়ামী লীগকে অনুসরণ করে যদি ভিশন দিয়ে থাকে, তাহলে বলব নেতিবাচক রাজনীতি থেকে ইতিবাচক ধারায় আসছে বিএনপি।’

শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবসের বিষয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ১৯৮১ সালের ১৭ মে শূন্যতা পূর্ণতা পায় ১৯৭২ সালের ১ জানুয়ারির মতো। তিনি বলেন, রাজনীতির পথ বড় ঝুঁকিপূর্ণ ও দুর্গম। এখনো ষড়যন্ত্র শেখ হাসিনাকে তাড়া করছে।

আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন ছাত্রলীগের সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসাইন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র (টিএসসি) মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এই আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি আবিদ আল হাসান। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মোতাহার হোসেন প্রিন্স।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/এস আর/কে আই/নীরব/ ১৬ মে ২০১৭